পরিবারকে ঝামেলায় রেখে তাবলিগে যাওয়া কি ঠিক?

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় বেসরকারি একটি টেলিভিশনের জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

প্রশ্ন : আমি দেখেছি, তাবলিগে এমনও কিছু লোক যায়, যারা পরিবারকে খুব খারাপ অবস্থায় রেখে তার পরে ওইখানে যাচ্ছে। আসলে এটা কি ঠিক?

উত্তর : যদি কেউ এই কাজটি করেন যে যাঁরা তাঁর কর্তৃত্বের মধ্যে রয়েছেন, তাঁর দায়িত্বের অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন, সোজাকথা বলতে গেলে তাঁর ওপর ভরণপোষণের দায়িত্ব রয়েছে, তাঁদের যদি কেউ তাঁর হক নষ্ট করে তিনি এভাবে এ কাজ করেন, তাহলে তিনি বড় ধরনের কবিরা গুনাহ করলেন।

কারণ, আল্লাহর নবী (সা.) হাদিসের মধ্যে স্পষ্ট করে বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি তাঁর কর্তৃত্বে যাঁরা রয়েছে, ভরণপোষণের দায়িত্বে রয়েছে, তাঁদের যে ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে কোনো কারণে নষ্ট করল, সে ক্ষতিগ্রস্ত হলো, সে গুনাহগার হলো। কারণ এটি গুনাহের কাজ।’

সুতরাং এই কাজ যদি কেউ করে থাকেন, এটা তাঁর ব্যক্তিগত ভুল। এর জন্য আসলে গোটা গ্রুপ অথবা কোনো সম্প্রদায় অথবা কোনো গোষ্ঠীকে দোষারোপ করার সুযোগ নেই। এটা হচ্ছে ব্যক্তিগত বিষয়। যে ভাই-ই করেন না কেন, তিনি অবশ্যই গুনাহগার হবেন, কোনো সন্দেহ নেই।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.