ট্রেনের টিকিট সহজেই পাওয়ার টিপস

ঈদের অগ্রিম টিকিটের জন্য অনেকেই  সেহেরী খেয়ে লাইনে দাঁড়ান , অনেকেই আবার দীর্ঘক্ষন লাইনে থেকেও টিকিট না পেয়ে হতাশ হন, অনেকেই আবার চড়া দাম ব্লাকে টিকিট কিনে ভি চিহ্ন দেখান । এটা আমাদের দেশের ঈদের সময়ের একটি চিরাচরিত চিত্র । এ চিত্রের ভিন্ন রূপও
আছে যা অনেকেই জানে না । বাংলাদেশ সরকারের কিছু ডিজিটাল সেবা রয়েছে যা অনেকের কাছে এখোনো অজানা ,অনেকেই জানলেও পেমেন্ট গেটওয়ে থাকায় বিশ্বাস করতে চায় না । এমনই রেলওয়ের একটি সেবা যার নাম ইসেবা বিডি  লিঙ্ক (https://www.esheba.cnsbd.com)
এখান থেকে অনায়াসে ঘরে বসে আপনি ঈদের টিকিটটি সংগ্রহ করতে পারেন যেখানে আপনাকে লাইনে দাড়াতে হচ্ছে না । টিকিট কেটে একটি নাম্বার ও পিন নাম্বার দেয় যেটি অনলাইন কাউন্টারে দেখালেই টিকিট দিয়ে দেয় ।আবার ইটিকিট আপনার মেইলে চলে  যায় চাইলে সেটি প্রিন্ট
করেও  ট্রেন ভ্রমণ করতে পারেন । এখন কথা হচ্ছে  সবার তো কম্পিউটার নাই তাহলে এই সেবা সবাই পাবেন কিভাবে ? এর সমাধান ও রয়েছে , আপনার একটি স্মার্টফোন থাকলেও চলবে। আপনার স্মার্টফোনে মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে ট্রেনের টিকিট কাটার সুযোগ পাচ্ছেন আগ্রহী ব্যক্তিরা।
‘ট্রেন টিকিট অ্যান্ড শিডিউল ইন বিডি’ নামের অ্যাপটির নির্মাতা টেকটিউনস।  রেলওয়ে সূত্র বলছে, অ্যাপ ব্যবহার করে কাউন্টারে এসে ফিরতি এসএমএস ও কোড নম্বর দেখালেই টিকিট দেওয়া হয়। এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অ্যাপটিতে এসএমএসে ও ওয়েবসাইটে টিকিট কেনার পুরো প্রক্রিয়ার
বর্ণনা রয়েছে এবং অ্যাপ থেকেই টিকিট কাটার সুবিধাও আছে। শুধু আপনার একটি ফোন কলেই যথেষ্ট অ্যাপ এর হেল্পলাইন এর সদস্যরাই আপনার টিকিট কেটে দিবে । অ্যাপটিতে রেলের সময়সূচি, অনলাইনে ও এসএমএসে টিকিট কাটার সুবিধা, টিকিটের মূল্যসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানা যাবে।
অ্যাপ এর লিঙ্কঃ  https://goo.gl/4kuLBr । অ্যাপ টি গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে । এবারে অনলাইন এর জন্য মাত্র ২০% টিকিট  বরাদ্ধ থাকায় আপনাকে টিকিট পেতে কিছু টিপস অবলম্বন করতে হবে যেমন  রেলওয়ে টিকিটের জন্য সার্ভার খুলে সকাল আটটায়
আর শেষ হয় রাত দশটায় , তাই সকাল আটটার আগেই ইসেবা বিডি বা অ্যাপস এ লগইন করে রাখুন আটটা বাজার সাথে সাথেই টিকিট কনফার্ম করে ফেলুন । আর পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা মাস্টার বা ভিসা কার্ডে বা মোবাইল ব্যাংকিং যেমন রকেটে ভরে রাখুন তাহলেই টিকিট আপনার নিশ্চিত।
সাধারণত সকাল দশটার পরে অনলাইন টিকিটের কোটা শেষ হয়ে যেতে পারে তাই লাইনে না দাঁড়িয়ে ঘরে বারে ট্রাই করতেই পারেন।  সেই সাথে সরকারের উচিত অনলাইন টিকিটের কোটা আরো বাড়ানো যাতে মানুষ হয়রানি থেকে একটু হলেই শান্তি পাই । ডিজিটাল বাংলাদেশ
গড়তে ২০% এ বসে থাকলে চলবে না অবশ্যই এই সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পোছে দিতে হবে ।  এ সেবা ১০০% নিশ্চিত হলে রেলওয়ে থেকে একদিকে যেমন রেভিনিও বাড়বে অন্যদিনে দালালের দৌড়াত্ব কমবে , সাথে মানুষ টিকিট কেটে ট্রেনে উঠবে এবং টিটিদের অবৈধ ইনকাম কমবে ।
সকলের ঈদ যাত্রা শুভ হোক ।
আব্দুস সাত্তার
সি ই ও , টেকটিউনস অ্যাপস
Loading...