বাংলাদেশে দিল্লির শাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে: সুব্রামনিয়াম

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

বিজেপি নেতা সুব্রামনিয়াম স্বামী অভিযোগ করে বলেছেন, বাংলাদেশের মাটিতে হিন্দুদের ওপর ক্রমাগত হামলা হচ্ছে। এই প্রবণতা অবিলম্বে বন্ধ না হলে বাংলাদেশ দখল করে নেয়া হবে। খবর কলকাতা টুয়েন্টিফোর সেভেনের।

রোববার আগরতলায় ত্রিপুরার সরকারের সরকারি অতিথিশালায় এক সংবাদ সম্মেলনে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির এই সাংসদ এই মন্তব্য করেন।
সাবেক মন্ত্রী সুব্রামনিয়াম দাবি করেন, বাংলাদেশে অনেক হিন্দু মন্দির জোরপূর্বক দখল করে নেয়া হচ্ছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বাংলাদেশের দরিদ্র শ্রেণির মানুষদের উপরে চাপ সৃষ্টি করে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে।

বাংলাদেশের হিন্দুদের ওপর সংখ্যাগুরু সম্প্রদায়ের এই ‘পাগলামি’ অবিলম্বে বন্ধ করার দাবিও জানিয়েছেন বিজেপির বিতর্কিত এই নেতা। তার ভাষায় এগুলো বন্ধ না হলে বাংলাদেশে দিল্লির শাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে বলেও হুমকি দেন সুব্রামনিয়াম। তিনি বলেন, হিন্দুদের বিরুদ্ধে পাগলামি বন্ধ না হলে বাংলাদেশ দখল করতে হবে। আমি সরকারকে সেই পরামর্শই দেবো।

তবে বাংলাদেশের সংখ্যাগুরু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে সরব হলেও দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে দাঁড়িয়েছেন সুব্রামনিয়াম স্বামী। ভারত সরকার সবসময় বঙ্গবন্ধু কন্যার পাশে রয়েছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার প্রতি ভারতের সমর্থন রয়েছে। কিন্তু মুসলিমদের হিন্দুদের গায়ের জোরে ধর্মান্তর এবং মন্দির ভাঙার তাণ্ডব বন্ধ করতে হবে।

উল্লেখ্য, বিজেপির বিতর্কিত এই নেতা এর আগেও বাংলাদেশ দখলের হুমকি দিয়েছিলেন। ভারতে ‘অবৈধভাবে’ অভিবাসী হওয়া বাংলাদেশিদের সংখ্যার অনুপাতে বাংলাদেশের ভূমি দখল করার প্রস্তাব দেন সুব্রামনিয়াম। পরে এজন্য হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাকে বহিষ্কারও করা হয়।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.