খাশোগির নিখোঁজ নিয়ে কথা বলায় ৫ সৌদি যুবরাজ গুম

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

জামাল খাশোগির নিখোঁজ নিয়ে অসন্তোষজনক কথা বলায় সৌদি আরবের রাজপরিবারের পাঁচ যুবরাজকে গুম করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন জার্মানিতে স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকা সৌদি যুবরাজ খালেদ বিন ফারহান আল-সৌদ।

গতকাল শুক্রবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম দি ইন্ডিপেন্ডেন্টে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তার বরাত দিয়ে এই অভিযোগের কথা বলা হয়

খালেদ বিন ফারহান বলেন, এই পাঁচ যুবরাজ হলেন আধুনিক সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠাতা বাদশাহ আবদুল-আজিজের নাতি। তারা গত সপ্তাহে সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এক বৈঠকে খাশোগির নিখোঁজের বিষয়ে কথা বলেছিল।

তিনি বলেন, তাদেরকে তাৎক্ষণিক আটক করা হয় এবং এখন তাদের অবস্থান সম্পর্কে কেউ কিছুই জানে না। যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সমালোচনাকারীদের মুখ বন্ধ করতে নেয়া পদক্ষেপগুলোরই অংশ এসব।

৪১ বছর বয়সী এই যুবরাজ বলেন, গত ২ অক্টোবর খাশোগির সঙ্গে যা ঘটেছে, ঠিক এর ১০ দিন আগে আমার সঙ্গেও তাই ঘটতে পারতো। আমার অর্থনৈতিক সঙ্কটের বিষয়টি শুনেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ এবং তারা আমাকে সাহায্য করতে চায়।

তিনি বলেন, আমার পরিবারকে বলা হয় তারা যেন আমাকে মিশরের কায়রোতে অবস্থিত সৌদি দূতাবাসে ডেকে পাঠায়। আমাকে একটা বড় অঙ্কের চেক এবং সম্পূর্ণ নিরাপত্তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। কিন্তু আমি তাদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করি।

তিনি আরও বলেন, এখন সৌদির অনেক যুবরাজ কারাবন্দি। মাত্র পাঁচদিন আগে তাদের একটি দল বাদশাহ সালমানের সঙ্গে দেখা করে জানায়, তারা আল-সৌদ পরিবারের ভবিষ্যৎ নিয়ে ভীত। তারা খাশোগির বিষয়টিও উত্থাপন করে।

এসব বিষয়ে জানতে ব্রিটিশ গণমাধ্যমটি সৌদি দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে কোনও জবাব পায়নি।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.