রাজনীতি

এইসব ভবনগুলো কিভাবে অনুমোদন পায়: মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম

আমি বুঝি না এই ভবনগুলো কিভাবে অনুমোদন পায় বললেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি আরো বলেন,  এরা তো কিছুই মানে না। এদের না আছে অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা, এরা না মানছে বিল্ডিং কোড। তাহলে কিভাবে চলছে এরা।শুক্রবার সন্ধ্যায় বনানীতে অগ্নিকাণ্ডে ভস্মীভূত এফ আর টাওয়ার ভবন পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।মির্জা ফখরুল ইসলাম আরও বলেন, পর পর দুর্ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে- কোথাও কারও কোনও জবাবদিহিতা নেই। এদেশে জবাবদিহিতার কোনও ব্যবস্থা না থাকায় এমন ঘটনা বার বার ঘটছে। জবাবদিহিমূলক সরকার থাকলে এমন ঘটনা ঘটতো না। এতগুলো মৃত্যু সত্যি হৃদয় বিদারক।এর আগে বিকেল ৫টার দিকে পুলিশের নেতৃত্বে বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের দুইজন করে প্রতিনিধি নিয়ে ভবনটির ভেতরে ২২টি টিম প্রবেশ করে। পুলিশের এসআই ও এএসআই পদমর্যাদার ২২ জন কর্মকর্তা ভবনের ২২টি ফ্লোরে এসব প্রতিনিধিদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিয়ে নিয়ে যান।তারও আগে উদ্ধার অভিযান সমাপ্তির ঘোষণা দেন ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর একেএম শাকিল নেওয়াজ। তারপর পু্লিশের কাছে ভবন হস্তান্তর করা হয়। এরপর ভবনে থাকা অফিসগুলোর মালিক বা প্রতিনিধিদের ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়। মূলত অফিসের অক্ষত মালামাল মালিকদের বুঝিয়ে দিতে তাদের ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়।বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ৫৫ মিনিটে ২৩তলা বনানীর এফ আর টাওয়ারের নয়তলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ২৫টি ইউনিট আগুন নেভানো ও হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করে। রাত ১১টা ১০ মিনিটে ঘোষণা দেয়া হয় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৭৩ জন। তারা রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ বিভাগের আরো খবর

Close