দেশজুড়ে

ইভটিজিংয়ের অভিযোগ তুলে নেই নি বলে ছাত্রীর বাবার ওপর হামলা

মেয়েকে উত্যক্ত করার অভিযোগ করায় বাবার ওপর হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হলেও হামলার শিকার ওই পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।এদিকে বাবার ওপর এমন হামলার ঘটনার পর থেকে ওই শিক্ষার্থী ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানা গেছে। গত সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) গাজিপুরের শ্রীপুর উপজেলার শিমলাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।হামলার শিকার আরিফুর রহমান গুরুতর অবস্থায় ৬ দিন ধরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানতে পারি, স্কুলে যাওয়া-আসার পথে প্রায়ই নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক মেয়েকে উত্যক্ত করত স্থানীয় যুবক সুমন মোড়ল। এ ঘটনায় কয়েকবার গ্রাম্য সালিশও বসায় এলাকাবাসী। কিন্তু উত্যক্তকারি প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিচার করা সম্ভব হয়নি স্থানীয়দের। এ ঘটনায় সোমবার ওই শিক্ষার্থীর বাবা থানায় গিয়ে লিখত অভিযোগ করেন।অভিযোগের একদিন পর বুধবার দুপুরে প্রকাশ্যে লোকজন নিয়ে বখাটে সুমন ওই ছাত্রীর বাবার ওপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ওইদিনই তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।আরিফুর রহমানের স্ত্রী বলেন, স্থানীয় জিল্লুর রহমানের ছেলে মো. সুমন মোড়ল, মনজুরুলসহ কয়েকজন মিলে আমার স্বামীকে কুপিয়ে জখম করেছে। তার হাতে ও পায়ে কোপানো হয়েছে। শরীরে প্রায় ৩০টি সেলাই করা হয়েছে। মামলা করার পর থেকে বিভিন্ন লোক দিয়ে আমাদের হুমকি দেওয় হচ্ছে। তারা বলছে হাসপাতাল থেকে বাড়ি গেলেই আমাদের এলাকা ছাড়া করা হবে বলেও হুমকি দিচ্ছে তারা।তিনি আরও বলেন, ঘটনার পর থেকে আমার মেয়ে স্কুলে যাচ্ছেনা। এক আত্মীয়ের কাছে মেয়েকে রেখে আসছি।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার এসআই মো. আজাহারুল ইসলাম আমাদের কে  জানান, ইভটিজিংয়ের সত্যতা পেয়েছি। অভিযুক্তরা তার লোকজন নিয়ে ওই অভিযোগকারী বাবার ওপর হামলা চালিয়েছে। দুটি মামলাও হয়েছে। এ ঘটনায় সাইফুল মোড়লকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানতে পারি।আরো জানান অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এ বিভাগের আরো খবর

Close