আমি কথার বরখেলাপ করিনি: আইনমন্ত্রী

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন- ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিতর্কিত নয়টি ধারা সংশোধন করা নিয়ে সম্পাদক পরিষদকে দেয়া কথার ‘বরখেলাপ’ করা হয়নি। আইনটা সংসদে পাস হয়ে গেছে। এটা নিয়ে ওনাদের (সম্পাদক পরিষদ) কথাগুলো মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপন করতে হবে। আমি শুনেছি ওনারা (সম্পাদক পরিষদ) নাকি বলেছেন আমি কথা রাখিনি। আমার কথা রাখার সময় কিন্তু এখনও শেষ হয়নি। আমি ওনাদের এইটুকু বলতে পারবো আমি কথার বরখেলাপ করিনি। কারণ আমার সময় এখনও শেষ হয়নি।শনিবার (১৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিতে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।আইনমন্ত্রী আরও বলেন- আমি এইটুকু বলতে পারি, আমরা যখন তাদের সঙ্গে (সম্পাদক পরিষদ) গত ৩০ তারিখ বৈঠক করি, সেই বৈঠকে তারা বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন। সেই বিষয়গুলো এখনও মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপন করিনি। তাই বলে করবো না, এটা তো বলিনি।উল্লেখ্য, সাংবাদিক ও বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের আলোচনার মধ্যেই গত ১৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল-২০১৮’ পাস হয়। এ আইনের বহুল আলোচিত ৩২ ধারাসহ কয়েকটি ধারা নিয়ে সাংবাদিক সমাজ আপত্তি জানিয়ে এসেছে। এসব ধারা রেখে আইনটি বাস্তবায়ন হলে ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য হুমকি’ হয়ে উঠবে বলে আপত্তি জানিয়ে সম্পাদক পরিষদ মানববন্ধনের ঘোষণাও দিয়েছিল। তবে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর অনুরোধে সেই কর্মসূচি স্থগিত করা হয়। পরে সরকারের তিন মন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টার সঙ্গে সম্পাদক পরিষদের বৈঠকে বলা হয়, আইনটি নিয়ে সম্পাদকদের আপত্তি মন্ত্রিসভায় আলোচনা করা হবে। এরপর মন্ত্রিসভার দুটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও সেখানে সম্পাদক পরিষদের আপত্তি নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। বরং ৮ অক্টোবর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ সই করলে তা আইনে পরিণত হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আজ (শনিবার) জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে আগামী সোমবার মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সম্পাদক পরিষদ।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.