অর্ধযুগ পর চলচ্চিত্রে ফিরলেন পূর্ণিমার

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

বিডিটাইপ.কম: জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত চিত্রনায়িকা পূর্ণিমার সর্বশেষ বড়পর্দায় উপস্থিতি ২০১২ সালে। সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘লোভে পাপ পাপে মৃত্যু’ চলচ্চিত্রটিই ছিলো পূর্ণিমার বড়পর্দায় সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি। ২০১৭ সালে ইফতেখার আহমেদ ফাহমি পরিচালিত ‘টু বি কন্টিনিউড’ নাম মাত্র হলে মুক্তি পেলেও নির্মাতার সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে চলচ্চিত্রটিকে আপন করে নিতে পারেন নি পূর্ণিমা।
পরিবার-সন্তানকে সময় দেয়ার পাশাপাশি চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে ছোটপর্দায় ব্যাস্ত হয়েছিলেন তিনি।

ভক্তদের প্রশ্ন বড়পর্দায় কবে ফিরবেন পূর্ণিমা? এমন প্রশ্নের উত্তরে গ্লিটজকে তিনি বলেছিলেন, “সবকিছু মিলে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে এখন একটু অশান্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি শান্ত হলেই চলচ্চিত্রে ফেরার কথা ভাবছি। বেশকিছু প্রস্তাব ও চিত্রনাট্য হাতে পাচ্ছি। যাচাই বাছাই চলছে। অপেক্ষা করছি ভালো চিত্রনাট্য, নির্মাতা ও নির্মাণের নিশ্চয়তারও। সবকিছু মিললেই ফের সিনেমায় কাজ করবো বলে আশা করছি।”
দেশের বড়পর্দায় এখন আমদানী নির্ভর ভারতীয় আর যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্রের দাপট।

পূর্নিমা ফিরলেন দেশি প্রযোজনার চলচ্চিত্রে।
ছোটপর্দার নির্মাতা নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের পরিচালনায় চলচ্চিত্র জ্যাম এ তার বিপরীতে অভিনয় করবেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। প্রয়াত বরেণ্য সাংবাদিক আহমদ জামান চৌধুরীর গল্পে চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন পান্থ শাহরিয়ার।
ছবিটি নির্মিত হচ্ছে প্রয়াত নায়ক মান্নার প্রযোজনা সংস্থা কৃতাঞ্জলি ফিল্মস থেকে। আগামী অক্টোবর থেকে ‘জ্যাম’ সিনেমার শুটিং শুরু হবে বলে জানা গেছে।
দীর্ঘদিন পর সিনেমার অভিনয়ে ফেরা প্রসঙ্গে পূর্ণিমা বলেন, “এতো দিন হাতে সিনেমা আসেনি তেমন নয়। আমি চেয়েছিলাম ভালো গল্পের একটি সিনেমা দিয়ে ফিরতে। অবশেষে এই সিনেমার গল্পটি ভালো লেগে গেল। যখন এই সিনেমার গল্পটা শুনলাম, আমার ভীষণ পছন্দ হয়েছে। আশা করি ভালো একটি কাজ হবে।

পূর্ণিমা আরও বলেন, “এই সিনেমাতে অভিনয় করার পেছনে আরও একটি কারণ আছে। সেটি হলো সিনেমাটি তৈরি হচ্ছে প্রয়াত মান্না ভাইয়ের প্রযোজনা সংস্থা থেকে। মান্না ভাইয়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। আর সিনেমার গল্পটি প্রয়াত সাংবাদিক আহমেদ জামান চৌধুরীর লেখা, সংলাপ তৈরি করছেন পান্থ শাহরিয়ার। অনেগুলো গুণী মানুষ সম্পৃক্ত আছে এই সিনেমাটির সাথে। এমন একটি সিনেমার সঙ্গে থাকতে পেরে ভালোই লাগছে।”
সোমবার দুপুরে চলচ্চিত্রটির মহরত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। এতে আরও অংশ নেন শেলী মান্না, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, ফেরদৌস, পূর্ণিমা, সিয়াম ইলতিমাস (মান্নার ছেলে), নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল, সুচন্দা, এটিএম শামসুজ্জামান।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.